মঙ্গলবার, জানুয়ারী ৩১, ২০ ২৩
তিতাস(কুমিল্লা)প্রতিনিধি::
২১ জানুয়ারী ২০ ২৩
৮:৪২ অপরাহ্ণ

তিতাসে ৩ ডাকাত গ্রেপ্তারের পর অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার

কুমিল্লার তিতাসে বিশেষ অভিযানে ৩ডাকাতকে গ্রেপ্তারের পর অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ।

উপজেলার কড়িকান্দি ইউনিয়নের চর-রাজাপুর ও রাজাপুর গ্রাম থেকে তাদের আটক করে গত শুক্রবার জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়।

এসময় ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত একটি পাইপগান ও দুই রাউন্ড তাজা কার্তুজ উদ্ধার করা হয়।


আটককৃত ডাকাতরা হলো, চর রাজাপুর গ্রামের মো. খোকন মিয়ার ছেলে মাদক কারবারী ও ডাকাত দলের মুলহোতা শফিকুল ইসলাম শফিক (২৮), সদর কড়িকান্দি গ্রামের মৃত বাচ্চু ভূইয়ার ছেলে মকবুল হোসেন (৪৩) ও বরিশালের উজিরপুর উপজেলার কচুয়া (বালিবাড়ি) গ্রামের মৃত ফরিদ ভূইয়ার ছেলে সিদ্দিকুর রহমান (৫৫)।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, গত বৃহস্পতিবার গভীর রাতে উপজেলা সদর কড়িকান্দি ইউনিয়নের চর-রাজাপুর গ্রামের মো. শাহজাহানের বাড়িতে একদল ডাকাত হানা দেয়। তাদের হাতে ছিল ধারালো দেশীয় অস্ত্র ও তালা কাটার মেশিন। ডাকাত সদস্যরা অস্ত্রের মুখে ব্যাবসায়ী শাহজানের পরিবারের সদস্যদের জিম্মি করে ও রশি দিয়ে বেঁধে ফেলে।পরে ঘরে থাকা নগদ ৩ লাখ টাকা, ১২ ভরি স্বর্ণ ও ১টি মোবাইল ফোন নিয়ে যায়।পরে পুলিশ অভিযান চালিয়ে তিন ডাকাতকে গ্রেপ্তার করে অস্ত্র মামলায় শফিককে এবং ডাকাতি মামলায় ৩ জনকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করেন।

এ বিষয়ে তিতাস থানার অফিসার ইনচার্জ সুধীন চন্দ্র দাস বলেন, শফিকের বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় মাদক, ডাকাতিসহ একাধিক মামলা রয়েছে।

আটকের পর তার দেয়া তথ্য অনুযায়ী তার বাড়ির পাশে পুরোনো একটি ড্রামের নীচে জাল দিয়ে মুড়িয়ে রাখা একটি পাইপগান ও দুই রাউন্ড তাজা গুলি পাওয়া যায়। এর আগেও সে ডিবি পুলিশের হাতে আটক হয় এবং জেল খাটে। কিছুদিন পুর্বে জামিনে এসে পূর্বের ন্যায় অপকর্ম শুরু করে দিয়েছে।

ওসি সুধীন চন্দ্র দাস আরও বলেন, তিতাস থানা সর্বদাই জনসাধারণের জন্য উন্মুক্ত।যেকোন বিষয়ে নির্ভয়ে তথ্য দিয়ে সহযোগিতা করুন। চুরি-ডাকাতি প্রতিরোধে জনগণকে আরও সচেতন হতে আহ্বান জানান তিনি।

ফেইসবুক কমেন্ট অপশন
এই বিভাগের আরো খবর
পুরাতন খবর খুঁজতে নিচে ক্লিক করুন


আমাদের ফেসবুক পেইজ