শনিবার, জুলাই ২৪, ২০ ২১
ডেস্ক নিউজ::
২০ জুলাই ২০ ২১
৮:৩৩ অপরাহ্ণ

কক্সবাজারে করোনার সচেতনতার বার্তা নিয়ে পথে নেমেছে ইয়ুথনেট

কক্সবাজারে গড়ে প্রতিদিন প্রায় এগারো হাজার মানুষ নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হচ্ছে। চলমান লকডাউন শিথিল হওয়ায় পরিস্থিতি আরও অবনতি হতে পারে।

এমন পরিস্থিতিতে জনগণকে বিনা প্রয়োজনে ঘর থেকে বের না হওয়া, মাস্ক পরা ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার উৎসাহ দিতে প্রচারাভিযানে নেমেছে যুব প্লাটফর্ম ইয়ুথনেট ফর ক্লাইমেট জাস্টিস।


এছাড়া সাধারণ জনগণের সুরক্ষা ও খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করার পাশাপাশি টিকা বিষয়ক প্রচারণার জন্য স্থানীয় প্রশাসনকে আরও নানামুখী উদ্যোগ নিতে আহ্বান জানিয়েছি সংস্থাটি। ২০ জুলাই (মঙ্গলবার) শিথিল লকডাউনের সময় সকলকে মাস্ক পরিধান ও অন্যান্য স্বাস্থ্যবিধি বিষয় সচেতন করতে সচেতনামূলকবার্তা পৌঁছে দিতে কাজ শুরু করেছে ইয়ুথনেট কক্সবাজার জেলার সদস্যরা।

‘মাস্ক পরবো, পরিস্থিতি কাটিয়ে উঠব’- এই স্লোগানে শহরের বিভিন্ন স্থানে চলমান এই শিথিল লকডাউনের সময় সকলকে মাস্ক পরিধান ও অন্যান্য স্বাস্থ্যবিধি বিষয় সচেতন করতে কক্সবাজার শহরের পানবাজার ও গোল দিঘীরপাড় এলাকায় ব্যবসায়ী এবং পথচলতি মানুষের হাতে মাস্ক বিতরণ করে সংগঠনটি। একইসঙ্গে করোনা সচেতনতার বার্তাও দেওয়া হয়। সংগঠনের এই উদ্যোগের প্রশংসা করেছেন সকলেই ।

ইয়ুথনেট কক্সবাজার জেলা শাখার সমন্বয়ক জিমরান মো: সায়েক বলেন, ‘করোনায় কার্যত বেসামাল গোটা দেশ । প্রতিদিনই হু হু করে বাড়ছে সংক্রমণ । লম্বা হচ্ছে মৃত্যুর তালিকা । এর থেকে ব্যতিক্রম নয় কক্সবাজার ও । কোভিড বিধিনিষেধ অমান্য করেই বাজার, রাস্তাঘাটে চলছে জমায়েত ।

কারও মুখে মাস্ক নেই তো, আবার মাস্ক থাকলে তা ঝুলছে থুতনিতে কিংবা কানে ৷ ফলে সংক্রমণের শঙ্কা বাড়ছেই ৷ এই পরিস্থিতিতে সাধারণ মানুষকে সচেতন করতে আমরা পথে নেমেছি ।

আমাদের প্রত্যেকের কাঁধে এখন নিরাপত্তার দায়িত্ব এসে পড়েছে। এই দায় আমরা কেউই এড়াতে পারি না। আমরা চাই জনগণকে সচেতন করতে। আশা রাখি এই প্রচারণার মাধ্যমে মানুষ সরকারি বিধিনিষেধের প্রতি আরও যত্নবান হবেন’।

ফেইসবুক কমেন্ট অপশন
এই বিভাগের আরো খবর
পুরাতন খবর খুঁজতে নিচে ক্লিক করুন


আমাদের ফেসবুক পেইজ