রবিবার, সেপ্টেম্বর ১৯, ২০ ২১
স্টাফ রিপোর্ট::
৬ সেপ্টেম্বর ২০ ২১
৬:৫৫ অপরাহ্ণ

সড়ক দুর্ঘটনা রোধে সচেতনতা মূলক নাটক ‌'সার্জেন্ট'

প্রতিদিন সড়কে ঝরছে প্রাণ। প্রতিদিনই খবরের কাগজে ভেসে উঠছে বীভৎস সব লাশের ছবি। সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হওয়ার খবর যেন আমাদের গা-সহা হয়ে গেছে। ফলে প্রতিদিন সড়কে প্রাণ ঝরলেও তা আমাদের মনকে আবেগতাড়িত করে না। এসব দুর্ঘটনার অন্যতম প্রধান কারণ হলো মানুষের অসচেতনতা অভাব। একটু সচেতন হলেই বড় ধরনে বিপদ থেকে রক্ষা করতে পারে।

এ ক্ষেত্রে সরকার, নীতিনির্ধারক, পুলিশ, গণমাধ্যম, ব্যক্তিপর্যায়সহ সব পক্ষেরই দায়িত্ব রয়েছে। সব পক্ষের সচেতনতা, জনসচেতনতা এবং সমন্বিত উদ্যোগই পারে সড়কে মৃত্যুর হার কমিয়ে আনতে। সম্প্রতি সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের সহযোগিতায় দুর্ঘটনা রোধে সচেতনতা মূলক একটি নাটক বের হয়েছে। ইতোমধ্যে দর্শকদের মধ্যে নাটকটি ব্যাপক সাড়া ফেলছে। অভিনেতা শিপন আহমদের রচনা ও পরিচালনায় সিলেটের আঞ্চলিক ও চলিত ভাষায় নাটকটির নাম "সার্জেন্ট"।

নাটকটি দেখা যাবে সিলেটি টেলিফিল্মস ইউটিউব চ্যানেলে। নাটকটিতে অভিনয় করছেন, শিপন আহমদ, হেলেনা, কামরুল চৌধুরী, রেজা রুবেল, জাফর হোসেন রুবেল, পিনাক দে, কামাল আহমদ দূর্জয়সহ আরো অনেকে। রচনা ও পরিচালনা করেন শিপন আহমদ। বিশেষ সহযোগিতা করেন মোগলাবাজার থানা ও আলমপুর পুলিশ ফাঁড়ি। এ ব্যাপারে নাট্যনির্মাতা শিপন আহমদ জানান, মানুষকে সচেতন করার লক্ষ্যে এই নাটকটি নির্মাণ করেছি। হেলমেট মোটরসাইকেল আরোহীর জন্য কতোটা গুরুত্বপূর্ণ তা বুঝিয়েছি। পুলিশ হেলমেটের জন্য মামলা দেয় অনেকে দূরে গিয়ে পুলিশকে গালি দেয় মামলা কেন দিলো।

আসলে পুলিশ যা করে জনগণের নিরাপত্তার স্বার্থে করে নাটকে তা বুঝানো হয়েছে। নাটকের সংক্ষিপ্ত গল্প : মদরিছ আলী। তিনি একজন অবসর প্রাপ্ত ট্রাফিক পুলিশের সার্জেন্ট। একদিন বাড়ির বারান্দায় বসে চা খাচ্ছেন, হঠাৎ এলাকার মেম্বার এসে হাজির। এ সময় মেম্বারের সাথে আলাপের একপর্যায়ে তিনি তার চাকরি জীবনের একটি ঘটনা বলেন। সচেতনামূলক ছোট্ট এই নাটিকায় দেখা যায়, ট্রাফিক পুলিশের সার্জেন্ট মদরিছ আলী একদিন রাস্তায় ডিউটি পালন করছিলেন, হঠাৎ হেলমেট বিহীন একজন মোটরসাইকেল আরোহী রাস্তা গিয়ে যেতে দেখে সিগনাল দিয়ে তাকে থামান এবং জিজ্ঞেস করেন হেলমেট কোথায়? উত্তরে ওই মোটরসাইকেল আরোহী বলেন, হেলমেট বাসায় রেখে এসেছি।

তখন ট্রাফিক সার্জেন্ট তাকে বলেন, হেলমেটতো বাসায় রাখার জিনিস নয়, এটি মাথায় থাকলে দূর্ঘটনা প্রতিরোধে অনেকটা সহায়ক হবে। তখন ওই মোটরসাইকেল আরোহী পুলিশকে বলে মাথা আমার আপনার এতো মাথা কেন। এরপর সার্জেন্টে হেলমেটের জন্য একটি মামলা দেন। কিচ্ছুক্ষণ পর খবর আসলো ওই মোটরসাইকেল আরোহী সড়ক দুর্ঘটনায় মারা যান। এরকম ঘটনা নিয়ে শিপন আহমদ নির্মাণ করেন নাটক "সার্জেন্ট"। সমাজের জন্য অনেকগুলো ম্যাসেজ আছে এই নাটকে।

ফেইসবুক কমেন্ট অপশন
এই বিভাগের আরো খবর
পুরাতন খবর খুঁজতে নিচে ক্লিক করুন


আমাদের ফেসবুক পেইজ