সোমবার, জুলাই ২২, ২০ ২৪
জাতীয় ডেস্ক::
৬ জুলাই ২০ ২৪
৬:০ ৪ অপরাহ্ণ

বৈষম্যবিরোধী কোটা, ছাত্র আন্দোলনে অবরুদ্ধ শাহবাগ

প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির সরকারি চাকরিতে ৩০ শতাংশ মুক্তিযোদ্ধা কোটাসহ ৫৬ শতাংশ কোটা বাতিল এবং ২০১৮ সালের পরিপত্র পুনর্বহালের দাবিতে আবার শাহবাগ মোড়ে অবস্থান নিয়েছেন শিক্ষার্থী ও চাকরিপ্রত্যাশীরা। এতে সড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে শাহবাগ অচল হয়ে পড়েছে।

এ সময় যানবাহনগুলোকে বিকল্প রাস্তা ব্যবহার করতে দেখা যায়। শনিবার বিকাল ৩টায় শিক্ষার্থীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিটি হল থেকে আলাদা ব্যানারে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সেন্ট্রাল লাইব্রেরির সামনে জড়ো হন। পরে সেখান থেকে বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে হলপাড়া-ভিসি চত্বর-টিএসসি-বকশিবাজার-বুয়েট-ইডেন কলেজ-হোম ইকোনমিকস-নীলক্ষেত-টিএসসি হয়ে বিকাল ৫টায় শাহবাগ মোড়ে অবস্থান নেন শিক্ষার্থীরা।

এতে ফার্মগেট-শাহবাগ, শাহবাগ-পল্টন-মগবাজার রোড, শাহবাগ-সায়েন্সল্যাব রোড এবং শাহবাগ-বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রবেশপথ বন্ধ হয়ে যায়। এ সময় সাধারণ জনগণ গাড়ি ছেড়ে হেঁটে গন্তব্যের পথে রওনা হন। তবে অ্যাম্বুলেন্সের নির্বিঘ্নে চলাচলের জন্য শিক্ষার্থীরা জায়গা করে দেন।

এ সময় শিক্ষার্থীরা অবরোধ অবরোধ, শাহবাগ অবরোধ, দফা এক দাবি এক, কোটা নট কাম ব্যাক, সংবিধানের মূলকথা, সুযোগের সমতা, সারা বাংলায় খবর দে, কোটা প্রথার কবর দে, দালালি না রাজপথ, রাজপথ রাজপথ, আঠারোর হাতিয়ার, গর্জে উঠুক আরেকবার, ‘জেগেছে রে জেগেছে, ছাত্রসমাজ জেগেছে, লেগেছে রে লেগেছে, রক্তে আগুন লেগেছে, কোটা প্রথা, বাতিল চাই বাতিল চাই, কোটা প্রথার বিরুদ্ধে, ডাইরেক্ট অ্যাকশন কোটা না মেধা, মেধা মেধা, ‘আপস না সংগ্রাম, সংগ্রাম সংগ্রাম’ মুক্তিযুদ্ধের বাংলায়, বৈষম্যের ঠাঁই নাই’ ইত্যাদি স্লোগান দিতে থাকেন।

ফেইসবুক কমেন্ট অপশন
এই বিভাগের আরো খবর
পুরাতন খবর খুঁজতে নিচে ক্লিক করুন


আমাদের ফেসবুক পেইজ