রবিবার, অক্টোবর ১, ২০ ২৩
বিজ্ঞপ্তি::
১৯ সেপ্টেম্বর ২০ ২৩
৭:৫৪ অপরাহ্ণ

দেশকে সংকটমুক্ত করতে ফ্যাসিস্ট সরকারকে বিতাড়িত করতে হবে : খন্দকার মুক্তাদির

বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা খন্দকার আব্দুল মুক্তাদির বলেছেন, দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া অত্যন্ত অসুস্থ। কাল তিনি দীর্ঘ সময় আইসিইউতে ছিলেন।

শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান আমাদেরকে ছেড়ে চলে যাওয়ার পরে তিনি চার দশক যাবত ক্লান্তিহীন ভাবে দেশ ও জাতির জন্য নিরলসভাবে কাজ করেছেন। তিনি কখনো কোন অপশক্তির কাছে কখনো মাথা নত করেননি।

জরুরী ভিত্তিতে বিদেশে উন্নত চিকিৎসার প্রয়োজন। কিন্তু সরকার তাঁকে উন্নত চিকিৎসা নিতে দিচ্ছে না। সরকার তাঁকে বিনা চিকিৎসায় মৃত্যুর দিকে ঠেলে দিচ্ছে। সর্বোপরি স্বৈরাচার সরকার দেশকে গভীর সংকটে ফেলে দিয়েছে। সর্বক্ষেত্রে আওয়ামীলীগের জনপ্রিয়তা তলানিতে নেমেছে। বিএনপি এখন সরকার পতনের এক দফা দাবীতে আন্দোলন করছে। সাধারণ মানুষ বিএনপির আন্দোলনে সাথে রয়েছে।

দেশকে সংকটমুক্ত করতে ফ্যাসিস্ট সরকারকে বিতাড়িত করতে হবে। মঙ্গলবার দুপুরে নগরীর একটি অভিজাত রেস্টুরেন্টে সিলেট জেলা বিএনপির পরিচিতি ও কার্যনির্বাহী কমিটির সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। সিলেট জেলা বিএনপির সভাপতি আব্দুল কাইয়ুম চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট এমরান আহমদ চৌধুরীর সঞ্চালনায় সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন- বিএনপির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ডা: শাখাওয়াত হাসান জীবন, নির্বাহী কমিটির সদস্য আবুল কাহের চৌধুরী শামীম ও হাদিয়া চৌধুরী মুন্নী, সিলেট মহানগর বিএনপির সভাপতি মোঃ নাসিম হোসাইন, সাধারণ সম্পাদক ইমদাদ হোসেন চৌধুরী, সিলেট জেলা বিএনপির সাবেক আহবায়ক কামরুল হুদা জায়গীরদার। বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বিএনপির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ডা: শাখাওয়াত হাসান জীবন বলেন, ফ্যাসিস্ট সরকারের বিরুদ্ধে দেশের মানুষ আজ ঐক্যবদ্ধভাবে রাজপথে নেমেছে। বিএনপি শান্তিপূর্ণ ভাবে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের জন্য লাগাতার আন্দোলন করছে।

বিশ্বের সকল গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র আজ বাংলাদেশের মুক্তিকামী সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে। এখন চুড়ান্ত আন্দোলনের সময়। দেশবাসীকে সাথে নিয়ে চুড়ান্ত আন্দোলনের মাধ্যমে অক্টোবর মাসের মধ্যেই স্বৈরাচার সরকারের পতন হবে ইনশাআল্লাহ। সভাপতির বক্তব্যে সিলেট জেলা বিএনপির সভাপতি আব্দুল কাইয়ুম চৌধুরী বলেন, কাউন্সিলরদের প্রত্যক্ষ ভোটে নির্বাচিত কমিটির নেতৃত্বে সিলেটে চলমান গণতান্ত্রিক আন্দোলন সারাদেশের মধ্যে রুল মডেলে পরিণত হয়েছে। দলের কেন্দ্রীয় কর্মসূচি সহ স্থানীয় ভাবে নেয়া সকল রাজনৈতিক কর্মসূচিতে দলের সর্বস্তরের নেতাকর্মী সহ সাধারণ মানুষ শতষ্ফূর্তভাবে অংশ নিচ্ছে। অতিতের যেকোন সময়ের তুলায় সিলেট জেলা বিএনপি অত্যন্ত সুসংগঠিত।

সম্মিলিত আন্দোলন সংগ্রামের মাধ্যমে দেশে গণতন্ত্র পুনঃপ্রতিষ্ঠা করব। সুচিকিৎসা বঞ্চিত দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি নিশ্চিত করতে হবে। এবং দেশনায়ক তারেক রহমানকে দেশে ফেরার প্রতিবন্ধকতা দূর করতে সংগ্রাম অব্যাহত রাখতে হবে। জনগন আমাদের সাথে আছে, বিজয় সুনিশ্চিত ইনশাআল্লাহ। জেলা বিএনপির সহ ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক আহমেদ সোলায়মান চেয়ারম্যানের পবিত্র কোরআন তেলাওয়াতের মধ্য দিয়ে সূচিত সভায় সাম্প্রতিক সময়ে সিলেটে বিএনপির যেসব নেতারা প্রয়াত হয়েছেন তাদের স্মরণে শোক প্রস্তাব গৃহীত হয়। এর পর গুরুতর অসুস্থ বিএনপির চেয়ারপার্সন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া ও বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান দেশনায়ক তারেক রহমানের সুস্থতা কামনা এবং নিখোঁজ বিএনপির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক এম. ইলিয়াস আলী, ছাত্রদল নেতা ইফতেখার আহমদ দিনার, জুনায়েদ আহমদ ও আনসার আলীকে ফিরে পাওয়ার জন্য মোনাজাত করেন সিলেট জেলা বিএনপির উপদেষ্টা ওসমান গণি। সভায় সিলেট জেলা বিএনপির কার্যনির্বাহী কমিটি ও উপদেষ্টা পরিষদের সদস্যদের মধ্যে পরিচয়পত্র বিতরণ করা হয়। সভায় জেলা বিএনপির দায়িত্ব গ্রহনের পর থেকে সংগঠনের গৃহীত কার্যক্রমের সাংগঠনিক রিপোর্ট পেশ করেন সিলেট জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট এমরান আহমদ চৌধুরী। সভায় বক্তারা আগামী ২১ সেপ্টেম্বর বিএনপির কেন্দ্রীয় ঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে শুরু হওয়া রোড মার্চ সিলেটে এসে পৌঁছবে এবং বিকেল ৪টায় নগরীর আলীয়া মাদ্রাসা মাঠে রোড মার্চের সর্বশেষ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে। এতে সিলেট জেলা ও মহানগর বিএনপি অঙ্গ-সহযোগী সংগঠন, সকল উপজেলা-পৌর এবং মহানগরীর সকল ওয়ার্ডের সর্বস্তরের নেতাকর্মীদের উপস্থিত হয়ে সমাবেশ সফল করার জন্য আহবান জানান।

ফেইসবুক কমেন্ট অপশন
এই বিভাগের আরো খবর
পুরাতন খবর খুঁজতে নিচে ক্লিক করুন


আমাদের ফেসবুক পেইজ