মঙ্গলবার, জানুয়ারী ৩১, ২০ ২৩
শাবিপ্রবি প্রতিনিধি::
২৮ নভেম্বর ২০ ২২
১০ :০ ৭ অপরাহ্ণ

শাবিতে অগ্নি নির্বাপণ ও উদ্ধারের প্রশিক্ষণ কর্মসূচি

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (শাবিপ্রবি) অগ্নি প্রতিরোধ, নির্বাপণ ও উদ্ধারের প্রশিক্ষণ কর্মসূচি ও প্রশিক্ষণ পেয়েছেন শতাধিক নিরাপত্তাকর্মী। সোমবার সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের হ্যান্ডবল গ্রাউন্ডে এ প্রশিক্ষণ দেন সিলেটের ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স শাখার একটি টিম।

এর আগে অগ্নি প্রতিরাধ, নির্বাপণ ও উদ্ধারের প্রশিক্ষণ বিষয়ক দুই দিনব্যাপী এ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ। এসময় তিনি বলেন, ‘‘আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ে অনেকগুলো ভবন হচ্ছে। সেগুলোতে বিদ্যুৎ বা অন্যান্য উৎস থেকে আগুন লাগলে তৎক্ষণাৎ কিভাবে উদ্ধার অভিযান চালাবো আমাদের নিরাপত্তাকর্মী বা সংশ্লিষ্ট যারা আছে তারা সে বিষয়ে জানে না।

আমরা সে বিষয়ে প্রশিক্ষণ নিশ্চিত করতে পারিনি। ‘আজকে যে সচেতনতাটা আমাদের মাঝে তৈরি হবে তা আমাদের মাঝে সঞ্চারিত হবে। আমারা নিয়ম নীতি মেনে অগ্নি নির্বাপকের যন্ত্র ব্যবহার করবো। এসময় তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের সার্বিক নিরাপত্তার বিষয়েও কথা বলেন। তিনি বলেন, ‘এই তিনশত বিশ একরের প্রতি ইঞ্চিতে নিরাপত্তা নিশ্চিত করা খুবই ডিফিকাল্ট। আমাদের যে টিলা আছে সেখানে আমরা নতুন করে ৬ জন নিরাপত্তাকর্মীকে নিয়োগ দিয়েছি। সেখানে ১৯টি সোলার লাইট লাগানো হয়েছে।

রাতের বেলাও এটা দিনের আলোর মতো থাকে। এছাড়া রাতের বেলায় যারা দুর্গম এলাকায় যায় তাদেরকে নিশাচার বলে সেখানে তাদেরকে না যাওয়ার জন্য অনুরোধ করেন উপাচার্য। তিনি আরও বলেন, ওইসব জায়গায় বিশ্ববিদ্যালয় পরিবারের যদি কেউ যদি যায় তাহলে তাদেরকে নিরাপত্তা দেওয়া কতৃপক্ষের জন্য কঠিন।

এ ব্যাপারে নিজেদেরকে সচেতন থাকতে হবে। সিলেট ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স শাখার উপপরিচালক মো. মনিরুজ্জামান বলেন, আগুন যদি লাগে তাহলে নির্বাপণ ও উদ্ধারের দিকটি আসে। কিন্তু আমরা যদি প্রতিরোধ করতে পারি তাহলে নির্বাপণের প্রশ্নটি এমনিতেই আসবে না। ‘প্রতিরোধ জিনিসটি এমন, এ বিশ্ববিদ্যালয়ে অনেকগুলো অগ্নি নির্বাপক যন্ত্র ঝুলানো আছে। ঝুলানো অর্থ হল আগুন লাগলে নির্বাপণ করতে হবে এবং আমাদের সচেতন থাকতে হবে।

শাবিতে কর্মরত বেসরকারি যমুনা সিকিউরিটি গার্ড লি. এর নিরাপত্তা কর্মকর্তা হাবিব রহমান জানান, তাদের ৮০ জন নিরাপত্তাকর্মী প্রশিক্ষণ পেয়েছেন। এছাড়া সরকারী ২০ থেকে ২৫ নিরাপত্তাকর্মী প্রশিক্ষণ পেয়েছেন। এছাড়া মঙ্গলবার সকালে আরও শতাধিক নিরাপত্তাকর্মী এ প্রশিক্ষণ নিবেন বলে জানান তিনি। প্রশিক্ষণের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক আনোয়ারুল ইসলাম, ছাত্র উপদেশ ও নির্দেশনা পরিচালক আমিনা পারভীন, রেজিস্ট্রার মুহাম্মদ ইশফাকুল হেসেন, বিভিন্ন অনুষদের ডিন, দপ্তারের কর্মকর্তা ও কর্মচারিরা উপস্থিত ছিলেন।

ফেইসবুক কমেন্ট অপশন
এই বিভাগের আরো খবর
পুরাতন খবর খুঁজতে নিচে ক্লিক করুন


আমাদের ফেসবুক পেইজ