মঙ্গলবার, জানুয়ারী ৩১, ২০ ২৩
বিশ্বনাথ প্রতিনিধি::
২২ জানুয়ারী ২০ ২৩
৮:১২ অপরাহ্ণ

সাংসদ মোকাব্বির খান
১১ বছর সিন্ডিকেটের কবলে ছিল বিশ্বনাথ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স

সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে দীর্ঘ ১১বছর পর অনুষ্ঠিত হয়েছে ব্যবস্থাপনা কমিটির সভা। রোববার দুপুরে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের হলরুমে ওই সভাটি অনুষ্ঠিত হয়। স্বাস্থ্য কর্মকর্তা হিসেবে গত ১জানুয়ারি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যোগদান করেছেন ডা: দিলওয়ার হোসেন সুমন। যোগদানের পর এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন স্থানীয় সংসদ সদস্য মোকাব্বির খান। তিনি বলেন, ২০১১ সালের পর থেকে উপজেলা হাসপাতাল ব্যবস্থাপনা কমিটির কোন সভা অনুষ্ঠিত হয়নি। এই দীর্ঘ ১১বছর সিন্ডিকেটের কবলে ছিল সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটি। বিশ্বনাথ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটি স্বেচ্চাচারিতা আর সিন্ডিকেটের কবলে পড়ে অসহ্য়া মানুষ সুচিকিৎস্যা থেকে বঞ্চিত ছিলেন।

সিন্ডিকেটের কারণে হাসপাতালের ওষুধ বিক্রি হতো বিভিন্ন ক্লিনিকে। ফলে লোকজন তাদের মৌলিক অধিকার থেকেও বঞ্চিত রয়েছে। আর এসব করেছেন সাবেক উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার খুটির জোরে। তার খুটির জোর থাকায় তাকে এই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে সরাতে অনেক কষ্ট হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, বিশ্বনাথ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বিশ্বনাথের সন্তান ডা. দিলওয়ার হোসেন সুমন যোগ দেয়ার পর থেকে এই হাসপাতালের স্বাস্থ্য সেবায় আলোর সম্ভাবনা সৃষ্টি হয়েছে। বিশ্বনাথবাসীরও আশা তৈরী হয়েছে। সেই আশাই সাফল্যের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাবে। এখন থেকে এই হাসপাতালটি নিয়মের মধ্যেই চলবে। হাসপাতালের প্রতিটি সমস্যা চিহ্নিত করে তা শীঘ্রই সমাধান করা হবে।

তিনি আরও বলেন, প্রত্যেকটি সেক্টরে দূর্নীতিবাজরা সিন্ডিকেট তৈরী করে লুটপাট চলছে। সচেতন জনগনকে সেই সিন্ডিকেটদের বিরুদ্ধে আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। তা না হলে দেশের উন্নয়ন বাধাগ্রস্থ হবে। এসময় হাসপাতালের সমস্যা, সেবা ও সার্বিক বিষয় তুলে ধরে বক্তব্য রাখেন উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. দিলওয়ার হোসেন সুমন।

স্বাস্থ্য সহকারি দিবাংশু গুনের পরিচালনায় আরও বক্তব্য রাখেন হাসপাতালের আরএমও রাজিব বৈষ্ণ, নাসিং সুপার ভাইজার শাকুর আহমদ, সাংবাদিক আশিক আলী, কাজী জামাল উদ্দিন, তজম্মূল আলী রাজু, আব্বাস হোসেন ইমরান। এরআগে ফিতা কেটে যক্ষ্মা নিয়ন্ত্রণ কর্মসূচীর আওতায় উপজেলা জিন এক্সপার্ট ল্যাবরেটরীর উদ্বোধন করেন।

এরপর ১৯-২৫ জানুয়ারী জরায়ূ ও-মুখ ও স্তন ক্যান্সার প্রতিরোধ সপ্তাহের উদ্বোধন করেন। পরে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সেরএনডিসি কর্ণার, ল্যাব অফিস, ইমাজেন্সি শাখাসহ প্রতি সেবা শাখা পরিদর্শন করেন। এরআগে কাদিপুরস্থ শাহজালাল পল্লি পরিষদ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে জাতীয় কৃমি নিয়ন্ত্রণ সপ্তাহ ও কোভিড-১৯ স্কুল ভ্যাক্সিণেশন (২য় রাউন্ড) প্রোগ্রামের উদ্বোধন করেন মোকাব্বির খান।

ফেইসবুক কমেন্ট অপশন
এই বিভাগের আরো খবর
পুরাতন খবর খুঁজতে নিচে ক্লিক করুন


আমাদের ফেসবুক পেইজ