মঙ্গলবার, জুন ১৮, ২০ ২৪
জগন্নাথপুর প্রতিনিধি::
৪ জুন ২০ ২৩
৮:৫৯ অপরাহ্ণ

জগন্নাথপুরে আবদাল হোসেন ভূইয়ার জানাজা’য় হাজার হাজার শোকার্ত জনতার ঢল

সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর পৌর শহরের ইকড়ছই (বড় নয়াবাড়ি) গ্রামের বাসিন্দা জগন্নাথপুর বাজার বণিক সমিতির সাবেক দুই বারের সফল সভাপতি ও জগন্নাথপুর বাজারের সাবেক দুই বারের সেক্রেটারি প্রবীণ শালিসি ব্যক্তি সকলের শ্রদ্ধাভাজন ও প্রিয়জন হাজী আবদাল হোসেন ভূইয়া (৭০) আর নেই।

৩ জুন শনিবার বিকেলে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে সিলেটের একটি হাসপাতালে তিনি ইন্তেকাল করেন। ৪ জুন রোববার বাদ জোহর ইকড়ছই আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে আবদাল হোসেন ভূইয়ার নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।

এ সময় সালাহ উদ্দিন ভূইয়ার পরিচালনায় সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেন, জগন্নাথপুর পৌরসভার মেয়র আক্তার হোসেন, আলহাজ আলা উদ্দিন ভূইয়া ও প্রয়াত আবদাল হোসেন ভূইয়ার ছেলে আতাউর রহমান ভূইয়া।

এতে দোয়া পরিচালনা করেন মাওলানা ছমির উদ্দিন। জানাজা’য় সাবেক পৌর প্রশাসক মোঃ মুকিত মিয়া, সাবেক পৌর মেয়র ও উপজেলা আ.লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মিজানুর রশীদ ভূইয়া, উপজেলা বিএনপির সভাপতি আবু হোরায়রা সাদ মাস্টার, জগন্নাথপুর বাজার বণিক সমিতির সভাপতি আফছর উদ্দিন ভূইয়া, বাজার সেক্রেটারি জাহির উদ্দিন সহ জগন্নাথপুর উপজেলার বিভিন্ন অঞ্চল ও দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে আসা রাজনীতিবিদ, জনপ্রতিনিধি, প্রবাসী, সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারী, ব্যবসায়ী, সাংবাদিক, সুধী সমাজ, সামাজিক নেতৃবৃন্দ সহ হাজার হাজার শোকার্ত জনতা অংশ গ্রহণ করেন।

এর আগে জগন্নাথপুর সদর বাজারে আবদাল হোসেন ভূইয়ার মরদেহ আনা হলে এক ঘন্টার জন্য বাজারের সকল ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রেখে জগন্নাথপুর বাজার বণিক সমিতি ও বাজার ব্যবস্থাপনা কমিটি সহ সর্বস্তরের মুসলিম ও হিন্দু সম্প্রদায়ের ব্যবসায়ীরা ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান।

প্রয়াত আবদাল হোসেন ভূইয়া একজন গুণী মানুষ ছিলেন। তাঁর শূণ্যতা কোন দিন পূরণ হওয়ার নয়। তাঁকে সর্বস্তরের মানুষ শ্রদ্ধা করতেন এবং ভালোবাসতেন। তিনি তাঁর বর্ণাঢ্য জীবনে মানুষের হৃদয়ের মণিকোঠায় স্থান করে নিয়েছিলেন বলেই শেষ বিদায় বেলায় মুসলিম-হিন্দু সহ হাজার হাজার মানুষ তাঁকে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন। এমন জীবন সমাজে কয়জন গড়তে পারে। মরিলে হাসিবে তুমি কাঁদিবে ভূবন। এমনই হৃদয় বিদারক চিত্র ফুটে উঠেছে আবদাল হোসেন ভূইয়ার মৃত্যুতে। এভাবেই শোকাহত মানুষ তাদের অভিমত ব্যক্ত করেছেন।

ফেইসবুক কমেন্ট অপশন
এই বিভাগের আরো খবর
পুরাতন খবর খুঁজতে নিচে ক্লিক করুন


আমাদের ফেসবুক পেইজ