শনিবার, ফেব্রুয়ারী ২৭, ২০ ২১
মো.শাহজাহান মিয়া,জগন্নাথপুর::
২৩ জানুয়ারী ২০ ২১
৭:১২ অপরাহ্ণ

জগন্নাথপুরে অগ্নিকান্ডের ঘটনা নিয়ে এলাকায় উত্তেজনা

সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার চিলাউড়া-হলদিপুর ইউনিয়নের বাউধরণ গ্রামে অগ্নিকান্ডের ঘটনা নিয়ে এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।

গ্রামের মুহিবুর রহমানের টিনসেড পুরনো বাড়িতে দীর্ঘদিন ধরে বসবাস করছেন মাসুক মিয়ার পরিবার। গত শনিবার রাতে বাড়ির রান্না ঘরে পেট্রোল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয়া হয়। তখন এ ঘরে ৩ অবুঝ শিশু সহ মাসুক মিয়ার পরিবারের লোকজন ঘুমে ছিলেন। এ সময় আগুন দেখে প্রতিবেশি আবু মিয়া এগিয়ে আসেন এবং সবাইকে জাগিয়ে তুলেন। পরে গ্রামের লোকজনের চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রন হয়। তা না হলে বড় ধরণের দুর্ঘটনা হতো।

এ ঘটনায় আংগুর মিয়া বাদী হয়ে গ্রামের তালেব আলী ও লিটন মিয়া সহ ৬ জনকে আসামী করে জগন্নাথপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। ২৩ জানুয়ারি শনিবার জগন্নাথপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন এবং বিষয়টি নিস্পত্তির লক্ষে গ্রামে শালিস বৈঠক বসে। এতে গ্রামের গণমান্য লোকজন উপস্থিত ছিলেন।

এ ব্যাপারে অভিযোগকারী আংগুর মিয়া বলেন, মুহিবুর রহমান তার বাড়ির জায়গা বিক্রি করতে চাইলে তার প্রবাসী ভাই মুজিবুর রহমান ও মতিউর রহমান কিনেননি। পরে সে আরেক প্রবাসী সৈয়দুল ইসলামের কাছে তার জায়গা বিক্রি করেন। এতে তার প্রবাসী ভাইয়েরা ক্ষিপ্ত হন।

এরই জের ধরে টাকার বিনিময়ে তালেব আলী ও লিটন মিয়া সহ লোকজন আগুন ধরিয়ে দিয়েছিল। যা গ্রামবাসী জানেন। তাই ন্যায় বিচার পাওয়ার আশায় আইনের আশ্রয় নিয়েছি।

স্থানীয় ইউপি সদস্য ঠাকন মিয়া বলেন, অগ্নিকা-ের ঘটনা সত্য। বিষয়টি সামধানের জন্য গ্রামের শালিসি ব্যক্তিদের নিয়ে চেষ্টা চলছে। তবে ঘরে থাকা ক্ষতিগ্রস্ত মাসুক মিয়া বলেন, তাদের বিরোধের কারণে আগুনে পুড়ে আমাদেরকে মারতে চেয়েছিল।

ফেইসবুক কমেন্ট অপশন
এই বিভাগের আরো খবর
পুরাতন খবর খুঁজতে নিচে ক্লিক করুন


আমাদের ফেসবুক পেইজ